1. admin@naldangabatra.com : admin :
শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ০৭:২২ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
অবহেলিত চলনবিল আজ উন্নয়নের রোল মডেল- পলক। দ্রুত বাড়ছে তিস্তার পানি নদীপাড়ে আতঙ্ক বিরাজ। মান্দার চৌবাড়িয়া হাটে অতিরিক্ত খাজনা আদায়ের ৫০ হাজার টাকা জরিমানা। আব্দুলপুর বাজারে  আগুন, আটটি দোকানঘর ও মালামাল পুড়ে ছাই লালপুরে সাবেক সাংসদ বীর মুক্তিযোদ্ধা শহীদ মমতাজ উদ্দিন স্মরণে স্মরণসভা অনুষ্ঠিত বড়াইগ্রামে ইউপি কার্যালয়ে ঢুকে ভাংচুর ও চেয়ারম্যানকে মারধর; প্রতিবাদে মহাসড়ক অবরোধ। নড়াইল সদর উপজেলার নবনির্বাচিত চেয়ারম্যানের দায়িত্ব গ্রহণ। বাগমারায় পূর্ব শত্রুতার জেরধরে ফলন্ত আম গাছ কেটে ফেলেছে দুস্কৃতকারীরা। ঈদে ঘরমুখো মানুষের হয়রানী ও টিকেট কালোবাজারী বন্ধে পুলিশ ও র‌্যাবের সাব-কন্ট্রোল রুম চালু। নলডাঙ্গায় দুর্নীতি বিরোধী বিতর্ক ও রচনা প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত

প্রথমবারের মতো পাবনায় সমলয় চাষপদ্ধতিতে প্রথমবারের ধানের চারা রোপণ শুরু

নলডাঙ্গা বার্তা ডেস্ক :
  • প্রকাশের সময় : সোমবার, ২০ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩
পাবনায় প্রথমবারের মতো সমলয় চাষপদ্ধতিতে আধুনিক কৃষি উপকরণ রাইস ট্রান্সপ্ল্যাাল্টারের মাধ্যমে বোর ধানের চারা রোপণ শুরু হয়েছে। কৃষি কাজে শ্রমিক সংকট দূর করণসহ সল্প সময়ে ফলন প্রাপ্তির এই পদ্ধতি সারা দেশে ছড়িয়ে দেওয়ার লক্ষে কৃষি বিভাগ এই উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন।
১৬০ বার পঠিত
প্রথমবারের মতো পাবনায় সমলয় চাষপদ্ধতিতে প্রথমবারের ধানের চারা রোপণ শুরু
মাসুদ রানা, পাবনা জেলা প্রতিনিধিঃ-
পাবনায় প্রথমবারের মতো সমলয় চাষপদ্ধতিতে আধুনিক কৃষি উপকরণ রাইস ট্রান্সপ্ল্যাাল্টারের মাধ্যমে বোর ধানের চারা রোপণ শুরু হয়েছে। কৃষি কাজে শ্রমিক সংকট দূর করণসহ সল্প সময়ে ফলন প্রাপ্তির এই পদ্ধতি সারা দেশে ছড়িয়ে দেওয়ার লক্ষে কৃষি বিভাগ এই উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন। ২০ ফেব্রুয়ারী (সোমবার) দুপুরে পাবনা সদরের ভাড়ারা উইনিয়নের নলদহ গ্রামে কৃষক আলতাব হোসেনের জমিতে এই মেশিন দিয়ে ধানের চারা রোপণের উদ্বোধন করা হয়। উদ্বুদ্ধকরণের আওতায় ৪০ একর ও সমন্বিত ব্যবস্থাপনার মাধ্যমে কৃষি যান্ত্রিকীকরণ প্রকল্পের আওতায়  বীজ সহায়তার মাধ্যমে ৫০ একর ফসলী জমিতে ব্রি-ধান-৭৯ জাতের বোর ধানের চারা রোপণ করা হয়।
এই পদ্ধতিতে চাষাবাদের ফলে একদিকে যেমন কৃষকের সময় বাঁচবে অন্যদিকে শ্রমিকসহ সার কীটনাশক, সেচ ব্যবস্থা অনেকাংশে কমে আসবে। যেখানে এক বিঘা ধানের চারা রোপণ করতে ৪ জন শ্রমিক দরকার হয় সেখানে দুইজন শ্রমিক দিয়ে এক ঘন্টায় এক বিঘা জমিতে চারা রোপণ করা সম্ভব হবে। পাশাপাশি ফলণ স্বাভাবিকের চাইতে ১০ থেকে ১৫% বৃদ্ধি পাবে।
মাঠ পর্যায়ে এই কার্যক্রমের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সদর উপজেলা চেয়ারম্যান মোশারফ হোসেন, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের অতিরিক্ত পরিচালক আব্দুল মজিদ, ডিটিও সাইফুল ইসলাম, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা সাহানাজ পারভীন লাবনী, উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা আবুসাঈদ শিখন, মোঃ মিনহাজ উদ্দিন, মোঃ কামরুজ্জামান সহ স্থানীয় কৃষকেরা। সমলিত ব্যবস্থাপনায় কৃষিযান্ত্রিকরণ প্রকল্পের আওয়তায় মাঠ পর্যায়ে কৃষকদের উদ্ধুদ্ধকরণের মাধ্যমে সদর সহ জেলার বিভিন্ন উপজেলাতে এই পদ্ধতিতে চাষাবাদ কার্যক্রম ইতমধ্যে শুরু হয়েছে। তবে বিগত বছরের সরকারি প্রণদনা থাকলেও এই বছরের কৃষকদের উদ্ধুদ্ধকরণের মাধ্যমে প্রযুক্তি ব্যবহারের সহযোগিতা প্রদাণ করা হচ্ছে। এছাড়া মাঠের সকল খরচ বহণ করছে সংশ্লিষ্ঠ কৃষক। শুধু কৃষি বিভাগ রাইস ট্রাসপ্ল্যান্টার মেশিন দিয়ে তাদের সহযোগিতা করছেন। তবে যে সকল কৃষকদের ৫০ একর জমি রয়েছে তাদেরকে ধানের চারা সরবরাহ করছে।
এছাড়া সমলয় বা সমবায় পদ্ধিতে একই স্থানে ৪০ একর জমিতে একই ধান রোপণ পক্রিয়ার কৃষকদের উদ্বুদ্ধকরণের মাধ্যমে আধুনিক মেশিন দিয়ে চারা রোপণের ক্ষেত্রে সহযোগিতা করা হচ্ছে। জমির অপচয় রোধ সহ প্রচলিত রীতিতে বীজতলা তৈরি না করে প্লাস্টিকের ট্রেতে লাগোনো ধানের বীজ দিয়ে এই মেশিনের মাধ্যমে চারা রোপণ করা হয়।  একটি ট্রান্সপ্ল্যান্টার মেশিন ঘন্টায় এক একর জমিতে  চারা লাগাতে পারে। এক্ষেত্রে কৃষকের সময়, শ্রমিক ও অর্থের সাশ্রয় হবে। বাংলাদেশ কৃষিসম্প্রসারণ অধিদপ্তর কৃষি বিভাগের মাধ্যমে প্রান্তিক কৃষকদের কৃষিযান্ত্রিকরণ প্রকল্পের আওয়তায় বাজারে মূল্যের চাইতে অর্ধেক দামে ১২ ধরনের কৃষি উপকরণ প্রাপ্তিতে সহযোগিতা প্রদাণ করছেন বলে জানা গেছে।
Facebook Comments Box

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২৩ ©  নলডাঙ্গা বার্তা

 
প্রযুক্তি সহায়তায় Shakil IT Park