1. admin@naldangabatra.com : admin :
শুক্রবার, ৩১ মে ২০২৪, ০৪:১৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় জেলা পরিষদ চেয়ারম্যানকে এসআইবিএল এর সম্মাননা প্রদান। লালপুরে অগ্নিকাণ্ডে ভ্যানচালকের ঘরবাড়ি ভস্মীভূত! পাবনার ৩ উপজেলায় চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলেন যাঁরা। নলডাঙ্গায় ব্রহ্মপুর ইউনিয়নে উন্মুক্ত বাজেট সভা অনুষ্ঠিত  আটঘরিয়ায় টানা দ্বিতীয় বারের মত চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলেন তানভীর, ভাইস চেয়ারম্যান মহিদুল, তহুরা । পীরগাছায় মাদ্রাসার ছাত্রীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার। গলায় ফাঁস দিয়ে লালপুরে যুবকের আত্নহত্যা! লালপুরে পুকুরের পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু নলডাঙ্গায় বিপ্রবেলঘড়িয়া ইউনিয়নে উন্মুক্ত বাজেট ঘোষণা।  শপথ নিলেন রংপুর বিভাগের ১৯ উপজেলা চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যানগণ।

তাহেরপুর পৌরসভায় সরিষা চাষে বিপ্লব লাভোবান কৃষকেরা

নলডাঙ্গা বার্তা ডেস্ক :
  • প্রকাশের সময় : শনিবার, ৪ মার্চ, ২০২৩
রাজশাহী বাগমারা তাহেরপুর পৌরসভা সরিষা চাষে বিপ্লব ঘটিয়েছেন রাজশাহীর কৃষকেরা সরিষার বাম্পার ফলনের পর এখন কৃষকের আঙিনায় চলছে সরিষা মাড়াই। স্বল্প খরচে বেশি লাভজনক হওয়ায় কৃষকরা সারিষা চাষে ঝুঁকে পড়েছে। বর্তমানে হাটে, বাজারে সরিষা বেচা-কেনা চলছে। হাটে ভালো দরে সরিষা বিক্রি করতে পেরে খুশি চাষিরা।
৯২ বার পঠিত

তাহেরপুর পৌরসভায় সরিষা চাষে বিপ্লব লাভোবান কৃষকেরা।

মো: আহিদ খান, স্টাফ রিপোর্টারঃ-

রাজশাহী বাগমারা তাহেরপুর পৌরসভা সরিষা চাষে বিপ্লব ঘটিয়েছেন রাজশাহীর কৃষকেরা সরিষার বাম্পার ফলনের পর এখন কৃষকের আঙিনায় চলছে সরিষা মাড়াই। স্বল্প খরচে বেশি লাভজনক হওয়ায় কৃষকরা সারিষা চাষে ঝুঁকে পড়েছে। বর্তমানে হাটে, বাজারে সরিষা বেচা-কেনা চলছে। হাটে ভালো দরে সরিষা বিক্রি করতে পেরে খুশি চাষিরা।

তাহের পুর পৌরসভা কৃষি অফিসার মো:সাজাহান আলী বলেন, সারিষা চাষে লক্ষ্যমাত্রা অতিক্রম করেছেন কৃষকরা। লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে সাড়ে ৫ হাজার হেক্টর বেশি জমিতে সরিষা চাষ হয়েছে। ১ বিঘা জমিতে সরিষা চাষে খরচ হয়ে থাকে ৫ হাজার টাকা। বিঘাতে প্রায় ৫ মন সরিষা উৎপাদন হয়ে থাকে। বাগমারা উপজেলার তাহের পুর পৌরসভা ৮ নং ওয়াড রসুল পুর গ্রামের কৃষক মাহাবুর রহমান বলেন, আমি এবছর ১ বিঘাতে ৪ মন সরিষা পেয়েছি। বিঘাতে উৎপাদন খরচ হয়েছে আড়াই থেকে ৩ হাজার টাকা। গত মৌসমে আলু চাষ করে লোকসান গুনতে হয়েছে। তাই এবার সরিষা চাষ করেছি।

জেলার কৃষি বিভাগ জানায় ,এক বিঘাতে আলু চাষে খরচ হয়েছে প্রায় ৩০ হাজার টাকা। স্বল্প খরচে বেশি লাভের কারনেই কৃষক সরিষা চাষ করছে। এ ছাড়া সরকার ৩ বছরের মধ্যে ভোজ্য তেলে স্বয়ং সম্পূর্ন হতে চায়। আমদানি সেয়াবিন তেলের উপর সরকার নির্ভর করতে চায় না। ইতো মধ্যে দেশের মানুষের মধ্যে সরিষার তেল খাওয়ার প্রবনতা বেড়েছে। সরিষার তেলের উপর নির্ভরশীল হলে সয়াবিন আমদানী কমে যাবে। এতে দেশের বৈদেশিক মুদ্রার অপচয় রোধ হবে। সরকারের কৃষি বিভাগের এটি একটি বিরাট সাফল্য বলে মনে করেন জেলা কৃষি কর্মকর্তারা।

তাহের পুর পৌরসভা হাটে সরিষা বিক্রি করতে আসা কৃষক আ: আলিম সরকার বলেন, গত সপ্তাহে অপেক্ষাকৃত কম শুকানো সরিষা ৩২০০ টাকা এবং শুকানো সরিষা ৩৪০০-৩৬০০ টাকায় কেনা-বেচা হয়েছে। এবার সরিষা চাষে ভালো দাম পেয়ে আমরা কৃষকেরা অনেক খুশি।

Facebook Comments Box

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২৩ ©  নলডাঙ্গা বার্তা

 
প্রযুক্তি সহায়তায় Shakil IT Park