1. admin@naldangabatra.com : admin :
বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ০২:৫৬ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
নলডাঙ্গায় বিপ্রবেলঘড়িয়া ইউনিয়নে উন্মুক্ত বাজেট ঘোষণা।  শপথ নিলেন রংপুর বিভাগের ১৯ উপজেলা চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যানগণ। রাজশাহী বিভাগে ২৩ উপজেলায় শপথ নিলেন চেয়ারম্যানরা। নলডাঙ্গার খাজুরা ইউনিয়নে উন্মুক্ত বাজেট ঘোষণা।  পাবনা সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থীর স্ত্রী ও সমর্থকদের ওপর হামলা। জেলা শিল্পকলা একাডেমি নওগাঁতে অনুষ্ঠিত হচ্ছে ৫২র প্রেক্ষাপটে নাটক ‘রাজমিস্ত্রি’ নরসিংদীর রায়পুরায় ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থীকে পিটিয়ে হত্যা। চাটমোহরে দুলাল,ভাঙ্গুড়ায় রাসেল ও ফরিদপুরে খলিলুর রহমান চেয়ারম্যান বিজয়ী । পাবনার ভাঙ্গুড়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলেন রাসেল । পাবনায় তেলবাহী লরির চাপায় নিহত ২

পাবনায় পিস্তল নিয়ে পুলিশের হাতে আটক মেয়র পুত্র কামরুল কারাগারে!

নলডাঙ্গা বার্তা ডেস্ক :
  • প্রকাশের সময় : শনিবার, ৪ মার্চ, ২০২৩
পাবনার ফরিদপুর উপজেলায় পিস্তল নিয়ে প্রতিপক্ষের লোকজনকে ধাওয়া দেওয়া সেই মেয়র পুত্রের বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনে মামলা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২ মার্চ) রাতে পুলিশের পক্ষ থেকে মামলাটি করা হয়েছে। ওই মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে শুক্রবার (৩ মার্চ) সকালে তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।
৬৭ বার পঠিত
পাবনায় পিস্তল নিয়ে পুলিশের হাতে আটক মেয়র পুত্র কামরুল কারাগারে! 
মাসুদ রানা, পাবনা জেলা প্রতিনিধিঃ-
পাবনার ফরিদপুর উপজেলায় পিস্তল নিয়ে প্রতিপক্ষের লোকজনকে ধাওয়া দেওয়া সেই মেয়র পুত্রের বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনে মামলা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২ মার্চ) রাতে পুলিশের পক্ষ থেকে মামলাটি করা হয়েছে। ওই মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে শুক্রবার (৩ মার্চ) সকালে তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।
ওই তরুণের নাম কামরুল হাসান (২৭)। তিনি ফরিদপুর পৌরসভার মেয়র ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি মো. কামরুজ্জামান মাজেদের ছেলে।
পুলিশ  জানিয়েছেন , জব্দকৃত পিস্তলটি কামরুজ্জামানের নামে লাইসেন্স করা। ঘটনার পর পুলিশ পিস্তলটির কাগজপত্র যাচাই–বাছাই করে মালিকানার সত্যতা পেয়েছে। তবে পিস্তলের অবৈধ ব্যবহারের জন্য অস্ত্র আইনে মামলাটি করা হয়েছে। রাতে থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) ওয়াজেদ আলী বাদী হয়ে মামলাটি করেছেন।
ফরিদপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মিজানুর রহমান মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, মামলায় কামরুল হাসানকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে শুক্রবার সকালে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। অস্ত্র আইনে মালিক লাইসেন্সের শর্ত ভঙ্গ করেছেন কি না জানতে চাইলে ওসি বলেন, মেয়রের ছেলে  বাড়ি থেকে পিস্তলটি বের করেছে তার  অজান্তেই প্রাথমিক তদন্তে বিষয়টি পরিষ্কার হয়েছে। ফলে এখানে অস্ত্র লাইসেন্সের শর্ত ভঙ্গের বিষয়টি আসেনি। স্থানীয় লোকজনের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, মেয়র পুত্র কামরুল দীর্ঘদিন মালয়েশিয়ায় ছিলেন। মাস ছয় আগে তিনি দেশে ফিরেছেন। এর পর থেকে এলাকাতেই আছেন। গত ২৭ ফেব্রুয়ারি উপজেলার পুঙ্গুলী ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের একটি সমাবেশ হয়। সমাবেশে স্থানীয় সংসদ সদস্য ও পৌর মেয়র উপস্থিত ছিলেন। সমাবেশে ইউপি চেয়ারম্যান সাজেদুল ইসলামকে বক্তব্য দিতে দেওয়া হয়নি। বিষয়টি নিয়ে পৌর মেয়র কামরুজ্জামানের সঙ্গে কথা–কাটাকাটি হয় তাঁর। এর পরিপ্রেক্ষিতেই সাজেদুলের ওপর ক্ষিপ্ত হন মেয়রের ছেলে কামরুল।
প্রত্যক্ষদর্শী ও দলীয় সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার বেলা ১টার দিকে ইউপি চেয়ারম্যান সাজেদুল উপজেলা সদরে এলে কামরুল হাসান লোকজন নিয়ে তাঁর ওপর চড়াও হন। এ সময় সাজেদুল পালানোর চেষ্টা করলে কামরুল পিস্তল নিয়ে তাঁকে ধাওয়া করেন। একপর্যায়ে সাজেদুলের লোকজন তাঁকে পিস্তলসহ ধরে থানায় খবর দেন। পরে পুলিশ গিয়ে তাঁকে আটক করে পিস্তলটি জব্দ করেন।
Facebook Comments Box

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২৩ ©  নলডাঙ্গা বার্তা

 
প্রযুক্তি সহায়তায় Shakil IT Park