1. admin@naldangabatra.com : admin :
শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ০৪:১৬ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
পাবনায় জমি সংক্রান্ত বিরোধে দুই গ্রুপের সংঘর্ষে নিহত ১, আহত ২০ নবীনগরের মিষ্টির সুখ্যাতি ছড়াচ্ছে দেশব্যাপী। তীব্র তাপপ্রবাহে তেঁতে উঠেছে অঞ্চল,পুড়ছে রাজশাহীর,তীব্র গরম ও কাঠফাটা রোদ বিরাজ করছে। পাবনায় ভারতীয় চিনি বোঝাই ১২টি ট্রাকসহ ২৩ জন আটক নির্বাচন সুষ্ঠু ও অবাধ করতে যা করার প্রয়োজন তাই করা হবে- নির্বাচন কমিশনার। লালপুরে বিয়ে করতে রাজি না হওয়ায় প্রেমিককে অপহরণের পর কুপিয়ে জখম। পিরোজপুরের বিভিন্ন থানা থেকে চুরি হওয়া ৩৪ মোবাইল ফোন মালিককে ফেরত দিলো পুলিশ সুপার। বিএনপি নেতা সোহেলের নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে রংপুরে মানববন্ধন। লালপুরে প্রাণিসম্পদ সেবা সপ্তাহের উদ্বোধন। বড়াইগ্রামে প্রাণিসম্পদ সেবা সপ্তাহ ও প্রদর্শনীর উদ্বোধন।

হবিগঞ্জের বানিয়াচংয়ে আওয়ামীলীগের এক নেতা নামধারীকে আসামী করায় ৯দিন পর হুমকির মাধ্যমে সংকেত পোস্ট করে ফেঁসে যাচ্ছেন নিজে।।

নলডাঙ্গা বার্তা ডেস্ক :
  • প্রকাশের সময় : রবিবার, ২ এপ্রিল, ২০২৩
হবিগঞ্জের বানিয়াচংয়ের আওয়ামিলীগ'র এক নেতা নামধারীকে চুরির মামলায় আসামি করায় নিজের ফায়দা হাসিল করার লক্ষ্য নিয়ে ৯দিন পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নিজের আইডি(ফেইসবুক) আইডি থেকে হুমকির মাধ্যমে সংকেত পোস্ট করে ফেঁসে যাচ্ছেন তিনি এখন নিজেই। তার এমন পোস্ট দেখে অনেকেই যার যার মতো করে মতামত উপস্থাপন করে যাচ্ছেন।
৯৭ বার পঠিত

হবিগঞ্জের বানিয়াচংয়ে আওয়ামীলীগের এক নেতা নামধারীকে আসামী করায় ৯দিন পর হুমকির মাধ্যমে সংকেত পোস্ট করে ফেঁসে যাচ্ছেন নিজে।

 

হবিগঞ্জ জেলা প্রতিনিধিঃ-   হবিগঞ্জের বানিয়াচংয়ের আওয়ামিলীগ’র এক নেতা নামধারীকে চুরির মামলায় আসামি করায় নিজের ফায়দা হাসিল করার লক্ষ্য নিয়ে ৯দিন পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নিজের আইডি(ফেইসবুক) আইডি থেকে হুমকির মাধ্যমে সংকেত পোস্ট করে ফেঁসে যাচ্ছেন তিনি এখন নিজেই।
তার এমন পোস্ট দেখে অনেকেই যার যার মতো করে মতামত উপস্থাপন করে যাচ্ছেন।

এমন পোস্টে গণমাধ্যম কর্মীদেরও নজর পড়ে এবং তারাও তাদের মতামত উপস্থাপন করেন। এনিয়ে শুরু হয়েছে এক তুলকালাম এক কান্ড। আর অন্যদিকে এই পোস্টের সূত্র ধরে এক অনুসন্ধান চালিয়ে মূল ঘটনাসহ বেরিয়ে আসতে থাকে এই নেতা নামধারী বহু নৈপত্যের অপকর্মের হুতা ভিলেন মোয়াজ্জেমের অন্ধকার জগতের বাদশার ভূমিকায় থেকে নিজের অপকর্মের কাহিনী। এই প্রতিবাদকারী আওয়ামিলীগ এর নেতা নামধারী যুবক এমন সাইনবোর্ড ব্যাবহার করে গ্রামের সাধারণ লোকজন থেকে শুরু করে পুলিশ প্রশাসন,সংবাদকর্মীসহ এমনকি বড় বড় নেতাদের নাম ভাঙ্গিয়ে ভয়ভিতী দেখিয়ে হয়রানি করাসহ হাতিয়ে নিচ্ছে হাজার টাকা।

এছাড়াও জনপ্রতিনিধিসহ বিভিন্ন শ্রেনী পেশার মানুষের দূর্বলতার সুযোগ নিয়ে নিজের স্বার্থ ফায়দা হাসিল করতে না পারলেই নিজের আইডি থেকে হুমকির মাধ্যমে আকার ইঙ্গিতে পোস্ট করে ফায়দা লুটতে চেষ্টা চালায়।এছাড়াও দূর্নিতীর তথ্য উপাত্ত নিজ থেকে সংগ্রহ করে সংবাদকর্মীদেরকে দিয়ে সংবাদ প্রকাশ করিয়ে আসছে এই মোয়াজ্জেম। এলাকার লোকজন ও থানা পুলিশ সূত্রে এই মোয়াজ্জেম সম্পর্কে খোঁজ নিয়ে জানাযায়, সে তার নিজ এলাকাসহ আশপাশের এলাকায় অবাধে মাদক ব্যবসা,সাধারণ মানুষকে ব্ল্যাকমেইল এবং বহু দাঙ্গা হাঙ্গামা মামলার অন্যতম আসামী হয়ে সমাজের চোখে এসবের গোপন রেখে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অন্যায়ের প্রতিবাদকারী হয়ে ভালো মানুষরূপী ভূমিকায় অভিনয় করে যাচ্ছে এই ভিলেন মোয়াজ্জেম হোসেন। তার এমন অপকর্মের কর্মকান্ডে অতিষ্ট হয়ে পড়েছেন জনপ্রতিনিধিসহ সাধারণ লোকজন। সুযোগ পেলেই রেখাই পাচ্ছেন তার হাত থেকে সরকারি বিভিন্ন দফতরের কর্মকর্তা কর্মচারীগন। অন্যজনের কাজ কর্ম নিজে(দালালী)করে টাকা হাতিয়ে নিয়ে বিভিন্ন অফিসে নিজের আত্মীয় পরিচয়ে বিভিন্ন প্রভাবের মাধ্যমে চাপসৃষ্টি করে এসব কাজ করার(দালালী) অভিযোগ পাওয়া যাচ্ছে মোয়াজ্জেমের এই পোস্টের পর থেকে। এমনকি তার বিভিন্ন অপরাধের অপকর্মের তথ্য উপাত্ত আসতে থাকে মিডিয়া কর্মীদের হাতে।

বানিয়াচং থানার একটি মামলার এজাহার সূত্রে দেখাযায়, হবিগঞ্জ জেলার বানিয়াচং উপজেলার ১৫নং পৈলার কান্দি ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের কুমড়ী দূর্গাপুর গ্রামের আঃরউফ মিয়ার পুত্র এই মোয়াজ্জেম হোসেন এই মামলার আসামী রয়েছেন।
মামলার বাদী হচ্ছেন একই ঠিকানার পাশাপাশি বাড়ির তার চাচাতো ভাই হন বর্তমান(মেম্বার) জন-প্রতিনিধি ইউপি সদস্য তাজুল ইসলাম। সম্প্রতি তাজুল ইসলাম ও তার পরিবারের লোকজনও রেহাই পাননি এই মুখোশধারী নেতা নামধারী প্রতিবাদী যুবক সন্ত্রাসী মোয়াজ্জেম হোসেন ও তার দলবল এর হাত থেকে। ইউপি সদস্য’র পরিবারকে মারপিট করার পর এবং মামলা দায়েরের ঘটনার পর থেকে দেশ-বিদেশ থেকেও আসতে থাকে অন্ধকার জগতের বাদশা মোয়াজ্জেম হোসেনের বিরুদ্ধে চাঞ্চল্যকর তথ্য। সপ্তাহ খানেকের অনুসন্ধানে এবং স্হানীয়দের সাথে আলাপকালে তার সম্পর্কে এসব তথ্য উপাত্ত থেকে বেড়িয়ে আসে। মোয়াজ্জেম হোসেন বয়স(২৫)সে তার ১৫নং পৈলারকান্দী ইউনিয়ন আওয়ামিলীগ’র সাংগঠনিক সম্পাদকের পরিচয় দিয়ে তার নিজ গ্রাম কুমড়ীসহ আশপাশের গ্রাম গুলোতে দীর্ঘদিন ধরে নেতা পরিচয় দিয়ে যাচ্ছে। এমনকি স্হানীয় সংসদ সদস্য,
পুলিশ প্রশাসনের কর্মকর্তাসহ বড় বড় রাজনৈতিক নেতাদের সাথে সখ্যতা গড়ে তুলে সেলফিবাজী ও তার ফটোসেশান থেকে বাদ যায়নি। আর এসব ছবি নিজের আইডি থেকে পোস্ট করে নেতার স্থায়িত্ব দেখিয়ে,মাদক ব্যবসা,সেবন এবং বিভিন্ন দাঙ্গার নেতৃত্ব দিয়ে যাচ্ছে এই প্রতারক মোয়াজ্জেম। এলাকায় নিজেকে অন্দকার জগতের বাদশা পরিচয় দিয়ে যাওয়ারও কথা শুনা যাচ্ছে। মামলা সূত্রে জানাযায়,১৪ মার্চ রাত ৯টায় স্থানীয় ইউপি সদস্য তাজুল ইসলাম এবং তার পরিবারকে মারপিট ও লুটপাটের ঘটনা ঘটায় মোয়াজ্জেম হোসেন ও তার বাহিনীর লোকজন।
পরে এই ঘটনায় মেম্বার তাজুল ইসলাম ৫ জনকে আসামী করে বানিয়াচং থানায় একটি মামলা দায়ের করেন যাহার মামলা নং-(১৫)।

মামলা দায়েরের পর থেকে তাজুল ইসলামকে প্রাননাশের হুমকিসহ বিভিন্ন ভাবে ঘায়েল করার লক্ষ্য নিয়ে মোয়াজ্জেম হোসেন ও তার বাহিনী বিভিন্ন অপ্রচারের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে বলেও দাবী করেন ইউপি সদস্য তাজুল ইসলাম।
নামপ্রকাশে অনিচ্ছুক স্থানীয় অনেকেই জানান,মোয়াজ্জেম(২৫)এতো অল্প বয়সে আওয়ামীলিগের নেতা পরিচয় দিয়ে সাধারণ মানুষকে হুমকি ধামকি এবং প্রতিনিয়ত হয়রানি করে দলকে কলংকিত করে যাচ্ছে।তার বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্হা নেওয়া না হলে সামনে দলের অনেক বড় ক্ষতি হয়ে যাবে এবং বিপদে পরতে হবে।এছাড়াও দলবল নিয়ে মারপিট দাঙ্গা হাঙ্গামার দায়ে মোয়াজ্জেম হোসেনের বিরুদ্ধে বিভিন্ন মামলা মোকদ্দমাও রয়েছে বলে জানান তারা।ইহিউপি সদস্য তাজুল ইসলাম বলেন মোয়াজ্জেম হোসেন আমার ভাই হয়,অথচ আমি একজন জনগণের রায়ে জনপ্রতিনিধি হয়েছি। জনগণের সঠিক দায়িত্ব পালনের জন্য। কিন্তু আমার কাছ থেকে কোন ধরনের সুযোগ সুবিধা না পাওয়ায় তার একটি বাহিনী মিলে দীর্ঘদিন ধরে আমার ও আমার পরিবারের ক্ষতি করার চেষ্টায় লিপ্ত রয়েছে।

কারন আমি তাদের অন্যায় ও অত্যাচার এবং অপরাধের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করি এটাই আমার দুষ। এলাকায় মাদক,জুয়া,চুরিসহ বিভিন্ন অপরাধ অপকর্মের সাথে জড়িত এই মোয়াজ্জেম ও তার বাহিনী।মএমনকি এলাকার লুকোমুখে শুনাযায়,সে নাকি অন্দকার জগতের বাদশা হয়ে গেছে। এবং ভবিষ্যতে তার দখলে থাকবে তার ইউনিয়নের জনগন। তার ও তার বাহিনীর এহেন কার্যক্রমে জনগন অতিষ্ঠ হয়ে আমার কাছে(জনপ্রতিনিধি) হওয়ায় তাদের বিষয়ে প্রায়ই বিচার দেন।আর আমি এসব বিষয় তাদেরকে জিজ্ঞাসা এবং এসবের প্রতিবাদ করতে গিয়েই তাদের হাতে আমিসহ পরিবারের লোকজনকে হামলার শিকার হতে হয়েছে।

এমনকি তারা হামলা চালিয়ে লুটপাট ও ভাংচুরের ঘটনা ঘটিয়েছে।
যার ফলে অবশেষে আমি বানিয়াচং থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেছি।
এর পর থেকে তারা আরও বেপরোয়া হয়ে উঠে পরে লেগেছে এবং আমাকে প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে যাচ্ছে। যেকোন সময় আমিসহ আমার পরিবারের লোকজনকে বড় ধরনের ক্ষতি করার চেষ্টায় লিপ্ত রয়েছে। এছাড়াও তাদের এসব অপরাধ লুকিয়ে রেখে লোক সমাজের চোখে ভালো মানুষ সাজতে গিয়ে,আমিসহ আমার পরিবারের বিরুদ্ধে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম(ফেইসবুক)এর ফেইক আইডি খুলে মানহানীর পোস্ট করে অপ্রচার চালিয়ে যাচ্ছে। এমনকি আমাকে উদ্যেশো করে এই ঘটনার এবং মামলার আসামি হওয়ার বিষয়টি গোপন রেখে ৯দিন পর মোয়াজ্জেম হোসেন তার নিজস্ব আইডি থেকে আমাকে হুমকির মাধ্যমে একটি সংকেত পোস্ট করেছে। যাহা আপনারাসহ দেশ বিদেশের লোকজনের কাছে এই বিষয়টি নিয়ে এমন তুলকালাম কান্ড শুরু হয়েছে। তাই আমি আপনাদের সকল মিডিয়া কর্মীদের মাধ্যমে সত্য বিষয়টি তুলে ধরার জন্য সহযোগীতা চাচ্ছি।

যাহাতে আপনাদের লেখনীর মাধ্যমে তার আড়ালে থাকা মুখোশটি উন্মোচন হয় এবং দেশ ও জাতির সামনে সত্য ঘটনাটি উঠে আসে। আমি এই সন্ত্রাসী বাহিনীর সঠিক বিচার চাই এবং আমার পরিবারের নিরাপত্তা চাচ্ছি। এব্যাপারে ১৫নং ইউনিয়ন আওয়ামীলিগ’র সভাপতি এমদাদুল হক মাষ্টার বলেন,স্কুল জীবন থেকেই সে একটা বেয়াদব।শিক্ষকদের সাথে বেয়াদবি করতো এই ছেলে।এতো অল্প বয়সের একটা ছেলেকে কিভাবে মূল সংগঠনের মধ্যে ২নং সাংগঠনিক সম্পাদক এর দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে আমি নিজেও জানিনা এটা। এমনকি এই বেয়াদব ছেলেটা এই পদের যোগ্য নয় বলেও জানান তিনি। এছাড়াও এই ছেলে বিভিন্ন অপরাধ ও দাঙ্গা হাঙ্গামার সাথে জড়িত এবং তার বিরুদ্ধে মামলা মোকদ্দমাও রয়েছে। এই ছেলের কারনে দলের সুনাম ক্ষুন্ন হচ্ছে এবং সামনে আরও বড় ধরনের ক্ষতি হওয়ার সম্ভবনা রয়েছে তিনি দুঃখ প্রকাশ করেন। এব্যাপারে ১৫নং পৈলারকান্দি ইউনিয়ন চেয়ারম্যান মোঃনাসির চৌধুরীর সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে,তার কোন সাড়া না পাওয়ায় মোয়াজ্জেম হোসেনসহ তার বাহিনীর লোকজন কেমন চরিত্রের এটা জানা সম্ভব হয়নি।

এব্যাপারে মামলার আইও এসআই শুভ্র দেব এর সাথে যোগাযোগ করা হলে,তিনি অভিযোগের সত্যতা শিকার করে বলেন,বিষয়টি তিনি তদন্ত করে যাচ্ছেন আপাতত তদন্তের স্বার্থে তিনি কিছু বলতে চাচ্ছেননা। তদন্তের পর কিছু বলবেন বলেও আলাপকালে জানান তিনি।

Facebook Comments Box

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২৩ ©  নলডাঙ্গা বার্তা

 
প্রযুক্তি সহায়তায় Shakil IT Park