1. admin@naldangabatra.com : admin :
শুক্রবার, ৩১ মে ২০২৪, ০৩:২৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় জেলা পরিষদ চেয়ারম্যানকে এসআইবিএল এর সম্মাননা প্রদান। লালপুরে অগ্নিকাণ্ডে ভ্যানচালকের ঘরবাড়ি ভস্মীভূত! পাবনার ৩ উপজেলায় চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলেন যাঁরা। নলডাঙ্গায় ব্রহ্মপুর ইউনিয়নে উন্মুক্ত বাজেট সভা অনুষ্ঠিত  আটঘরিয়ায় টানা দ্বিতীয় বারের মত চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলেন তানভীর, ভাইস চেয়ারম্যান মহিদুল, তহুরা । পীরগাছায় মাদ্রাসার ছাত্রীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার। গলায় ফাঁস দিয়ে লালপুরে যুবকের আত্নহত্যা! লালপুরে পুকুরের পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু নলডাঙ্গায় বিপ্রবেলঘড়িয়া ইউনিয়নে উন্মুক্ত বাজেট ঘোষণা।  শপথ নিলেন রংপুর বিভাগের ১৯ উপজেলা চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যানগণ।

নড়াইলে বেড়িবাধের অভাবে নদীর তান্ডবে কৃষকের ফসলি জমি হুমকির মুখে!

নলডাঙ্গা বার্তা ডেস্ক :
  • প্রকাশের সময় : শনিবার, ২৭ মে, ২০২৩
নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার কোটাকোল ইউনিয়নের ঘাঘা গ্রামে বেড়ীবাঁধ না থাকার কারনে কোটাকোল, মল্লিকপুর, দিঘলিয়া এবং লোহাগড়া ইউনিয়নের প্রায় দুই হাজার একর জমির ফসল প্রতিবছরই কমবেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়।
৩৯৪ বার পঠিত

নড়াইলে বেড়িবাধের অভাবে নদীর তান্ডবে কৃষকের ফসলি জমি হুমকির মুখে!

খন্দকার ছদরুজ্জামান, নড়াইল জেলা প্রতিনিধি:

নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার কোটাকোল ইউনিয়নের ঘাঘা গ্রামে বেড়ীবাঁধ না থাকার কারনে কোটাকোল, মল্লিকপুর, দিঘলিয়া এবং লোহাগড়া ইউনিয়নের প্রায় দুই হাজার একর জমির ফসল প্রতিবছরই কমবেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়।

এলাকাবাসীর সাথে কথা বলে জানা যায় প্রতিবছর পার্শ্ববর্তী মধুমতি নদীর পানি বৃদ্ধির কারণে ফসলী জমিতে নদীর পানি প্রবেশ করে জমির ফসলের ক্ষতি করে গত দুই বছর কৃষকরা গ্রাম থেকে টাকা কালেকশন করে ছোট করে বাধ নির্মাণ করে কিন্তু প্রতিবছরই তীব্র স্রোতে বাঁধ ভেঙে বিলে পানি প্রবেশ করে ।

কৃষকরা সঠিকভাবে চাষাবাদ করতে পারে না ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকদের দাবির পরিপ্রেক্ষিতে সরকার কোটাকোল ঘাঘা, কুড়ালতলা, যোগিয়া, বারপাড়া,মৌজে মধুমতী নদীর পাশে বন্যা নিয়ন্ত্রণ বেড়িবাধ নির্মাণের লক্ষ্যে ঠিকাদার প্রতিষ্ঠানকে প্রায় এক বছর পূর্বে কার্যাদেশ প্রদান করেন। কিন্তু জমি অধিগ্রহ না হওয়ায় বেড়ীবাধ নির্মাণের কাজ এখনো পর্যন্ত হয়নি, ফলে বর্ষা মৌসুমে নদীর পানি প্রবেশ করে হাজার হাজার একর জমির ফসল নষ্ট হওয়ার ভয়ে আতঙ্কিত অত্র এলাকার কৃষকরা। এলাকাবাসীর দাবি জমি অধিগ্রহণের দায়িত্বে থাকা কর্মকর্তাদের অযৌক্তিক সময় ক্ষেপণ ও অবহেলার কারণে যাতে বেড়িবাধের কাজ থেমে না থাকে সে ব্যাপারে শত শত গ্রামবাসীর পক্ষ থেকে জেলা প্রশাসক বরাবর দ্রুত কাজ শুরুর জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণে দরখাস্ত প্রদান করা হয়।

Facebook Comments Box

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২৩ ©  নলডাঙ্গা বার্তা

 
প্রযুক্তি সহায়তায় Shakil IT Park