1. admin@naldangabatra.com : admin :
বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ০৩:১৭ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
নলডাঙ্গায় বিপ্রবেলঘড়িয়া ইউনিয়নে উন্মুক্ত বাজেট ঘোষণা।  শপথ নিলেন রংপুর বিভাগের ১৯ উপজেলা চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যানগণ। রাজশাহী বিভাগে ২৩ উপজেলায় শপথ নিলেন চেয়ারম্যানরা। নলডাঙ্গার খাজুরা ইউনিয়নে উন্মুক্ত বাজেট ঘোষণা।  পাবনা সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থীর স্ত্রী ও সমর্থকদের ওপর হামলা। জেলা শিল্পকলা একাডেমি নওগাঁতে অনুষ্ঠিত হচ্ছে ৫২র প্রেক্ষাপটে নাটক ‘রাজমিস্ত্রি’ নরসিংদীর রায়পুরায় ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থীকে পিটিয়ে হত্যা। চাটমোহরে দুলাল,ভাঙ্গুড়ায় রাসেল ও ফরিদপুরে খলিলুর রহমান চেয়ারম্যান বিজয়ী । পাবনার ভাঙ্গুড়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলেন রাসেল । পাবনায় তেলবাহী লরির চাপায় নিহত ২

বড়াইগ্রামে প্রিয়তমা’র ওড়না পেঁচিয়ে কলেজ ছাত্রের আত্নহত্যা!

নলডাঙ্গা বার্তা ডেস্ক :
  • প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ১৮ জুলাই, ২০২৩
মিত্তিকা তুমি আমার বিশ্বাসটা একদম শেষ করে দিয়েছো, আর বিশ্বাস ছাড়া বেঁচে থাকাটা সম্ভব না। তোমার মনে আছে তুমি আমাকে তোমার ব্যবহার করা একটা ওড়না দিয়েছিলে, আমি সেই ওড়নাতেই আজ ফাঁসি নিচ্ছি।” ফেসবুকে এমন আবেগঘন স্ট্যাটাস দিয়ে সিলিং ফ্যানের সাথে ওই ওড়না গলায় পেঁচিয়ে আত্নহত্যা করে কলেজ ছাত্র ফাহিম ফয়সাল (১৯)। নাটোরের বড়াইগ্রামের মাঝগাঁও পারকোল গ্রামের মৃত আব্দুর রাজ্জাকের ছেলে চাপাইনবাবগঞ্জ পলিটেকনিক্যাল কলেজের ৫ম সেমিস্টারের ছাত্র ফাহিম ফয়সাল রবিবার দিবাগত রাত ৩টা ৪০ মিনিটে কলেজ সংলগ্ন একটি মেসে আত্নহত্যা করে। তার মৃতদেহ সোমবার বিকেল ৫টার দিকে নিজ বাড়িতে নিয়ে আসে স্বজনরা।
১২৮ বার পঠিত

বড়াইগ্রামে প্রিয়তমা’র ওড়না পেঁচিয়ে কলেজ ছাত্রের আত্নহত্যা!

সুরুজ আলী, বিশেষ প্রতিনিধিঃ

“মিত্তিকা তুমি আমার বিশ্বাসটা একদম শেষ করে দিয়েছো, আর বিশ্বাস ছাড়া বেঁচে থাকাটা সম্ভব না। তোমার মনে আছে তুমি আমাকে তোমার ব্যবহার করা একটা ওড়না দিয়েছিলে, আমি সেই ওড়নাতেই আজ ফাঁসি নিচ্ছি।” ফেসবুকে এমন আবেগঘন স্ট্যাটাস দিয়ে সিলিং ফ্যানের সাথে ওই ওড়না গলায় পেঁচিয়ে আত্নহত্যা করে কলেজ ছাত্র ফাহিম ফয়সাল (১৯)। নাটোরের বড়াইগ্রামের মাঝগাঁও পারকোল গ্রামের মৃত আব্দুর রাজ্জাকের ছেলে চাপাইনবাবগঞ্জ পলিটেকনিক্যাল কলেজের ৫ম সেমিস্টারের ছাত্র ফাহিম ফয়সাল রবিবার দিবাগত রাত ৩টা ৪০ মিনিটে কলেজ সংলগ্ন একটি মেসে আত্নহত্যা করে। তার মৃতদেহ সোমবার বিকেল ৫টার দিকে নিজ বাড়িতে নিয়ে আসে স্বজনরা।

জানা যায়, ফাহিম ও মিত্তিকা উপজেলার আগ্রাণ উচ্চ বিদ্যালয়ে পড়াশুনা করতো এবং সেখান থেকে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। এসএসসি পাশ করার পর ফাহিম চাপাইনবাবগঞ্জ পলিটেকনিক্যাল কলেজে এবং মিত্তিকা মৌখাড়া কলেজে ভর্তি হয়। এর কিছুদিন পর মিত্তিকা এই প্রেমের সম্পর্ক থেকে সরে আসলে ফাহিম মানসিকভাবে ভেঙ্গে পড়ে এবং অবশেষে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে আত্নহত্যা করে। ফাহিম ওই স্ট্যাটাসে তার মা’কে উদ্দেশ্য করে লিখেন, আম্মু পারলে আমাকে মাফ করে দিও। তোমার ছেলেটা এভাবে চলে যেতে চায়নি কখনও। ইচ্ছে ছিলো বড় কিছু হয়ে তোমার ইচ্ছে পূরণ করার। তোমার অনেক সম্মান নষ্ট করেছি…। সময় মতো ঔষধগুলো খেও। আমি জানি এটা মহাপাপ। তাও আমি এটা করতে বাধ্য হচ্ছি।”

মাঝগাঁও ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল আজাদ দুলাল এ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, এটা আবেগজড়িত একটি দুর্ঘটনা যা কোনভাবেই সমর্থন করা যায় না। প্রতিটি পিতা-মাতাকে এ সব বিষয়ে সতর্ক থাকা জরুরি।

Facebook Comments Box

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২৩ ©  নলডাঙ্গা বার্তা

 
প্রযুক্তি সহায়তায় Shakil IT Park